মাদ্রাসায় চলমান নিয়োগ প্রক্রিয়া ৩ মাসের স্থগিত রাখার আদেশ দিয়েছেন আদালত

মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) বিচারপতি মো.  ওবায়দুল হাসান এবং বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের যৌথ বেঞ্চ এ রুল জারি করেন। রিটকারীদের পক্ষের আইনজীবী সৈয়দ জাহাঙ্গীর হোসেন প্রত্যহ সকালবেলাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, মাদরাসার জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা-২০১৮ এর ৩৫ নং কলামে উল্লিখিত সহকারী গ্রন্থাগারিক পদের নিয়োগে শিক্ষাগত যোগ্যতায় শুধু ফাজিল বা আরবি বিষয়ে অনার্স ডিগ্রি এবং গ্রন্থাগার বিজ্ঞানে ডিপ্লোমা যোগ্যতা চাওয়া হয়েছে। ফলে, কলেজ-ইউনিভার্সিটি থেকে সাধারণ বিষয়ে স্নাতক বা অনার্স পাস করা থেকে গ্রন্থাগার বিজ্ঞানে ডিপ্লোমাধারীরা বঞ্চিত হয়। তাই, সাধারণ ধারা শিক্ষিত ডিপ্লোমাধারীদের পক্ষ থেকে ওই বিধানের বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ করে রিট মামলা দায়ের করেন।

মাদরাসায় সহকারী গ্রন্থাগারিক/ক্যটালগার নিয়োগের ওপর তিন মাসের স্থগিতাদেশ জারি করেছে হাইকোর্ট। একইসাথে সাধারণ ধারার শিক্ষার্থীদের বাদ দিয়ে মাদরাসার সহকারী গ্রন্থাগারিক নিয়োগে শিক্ষাগত যোগ্যতা রাখা কেনো অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা হাইকোর্টকে জানাতে বলা হয়েছে।  কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ, মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তরসহ বিবাদীদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।