প্রেম করার মানুষ পাচ্ছেন না পায়েল

টালিপাড়ার অভিনেত্রী পায়েল সরকারকে সবশেষ দেখা যায় ‘মুখোশ’ ছবিতে। এরপর শুরু করেছেন নতুন ছবি ‘ম্যাজিক’ এর কাজ। তারপরেও ফ্লুরোসেন্ট রং আর গসিপ মোড়া পেজ-থ্রি’র পার্টিতে আগের মতো আর দেখা যায় না তাকে।

এদিকে, রাজ চক্রবর্তী আর আবির সেনগুপ্তর সঙ্গে ব্রেকআপের পর অনেকদিন পার হলেও তার নতুন প্রেম নিয়ে টালিপাড়ায় আর কোনো আলোচনাও হচ্ছে না।

তবে পায়েল জানিয়েছেন, কাউকেই পছন্দ হয় না, কী করব? জোর করে তো আর প্রেম করতে পারব না!

এই অভিনেত্রী ভারতীয় গণমাধ্যমে জানান, প্রেম একেবারেই নেই। কাউকেই পছন্দ হয় না, কী করব? জোর করে তো আর প্রেম করতে পারব না! আমি জানি আমার চারপাশটা খুব বোরিং হয়ে আছে। আশেপাশের মানুষগুলোও। প্রেম নেই, পার্টি নেই। কী করব বলুন, ডিক্যাপ্রিও-র মতো কাউকে পাচ্ছি না তো।

পার্টিতে আগের মতো দেখা যায় না? এ প্রসঙ্গে পায়েল বলেন, প্রতি দিন নতুন নতুন পরিচালক স্ক্রিপ্ট শোনাতে ফোন করেন আমাকে। আমি করি বা না করি, সেটা পরের ব্যাপার। তারা যে প্রথমেই আমাকে কাস্ট করার কথা ভেবে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেন, তার জন্য কোনো পার্টির দরকার পড়ে না। তাছাড়া ওই পার্টিতে গিয়ে পিআর করে অফার পাব, এটা না আমার দ্বারা হবে না। যে কারণে অনেক পার্টিতে আমাকে পায় না।

বর্তমান টালিপাড়ার চলচ্চিত্র নিয়ে পায়েল বলেন, প্রতি মুহূর্তে দর্শকের টেস্ট বদলাচ্ছে। আমি দশ বছর আগেও যে সব কমার্শিয়াল ছবি করেছি, সেগুলো কিন্তু এখন আর চলে না। আমি নাম নিতে চাই না ছবিগুলোর, সেই ছবিগুলো পোটেনশিয়াল ছিল কিন্তু হিট হয়নি। আবার এর উল্টোও হয়েছে। আজ থেকে ১০ বছর আগের সময়টায় শুধুমাত্র সিনেমা ছিল। এখন ওয়েবও আছে। সবমিলিয়ে দর্শকের রুচি অনুযায়ী সিনেমায় কাজ করা খুব গুরত্বপূর্ণ হয়েছে।

পায়েল সরকার ‘প্রেম আমার’, ‘বোঝে না সে বুঝে না’-তে তুখোড় অভিনয়, ‘পাশের বাড়ির মেয়ে’ মানেই পায়েল সরকার, সেইখান থেকে পর পর বেশ কিছু ছবি ফ্লপ ছবি উপহার দেন। সূত্র: আনন্দবাজার